kalerkantho


আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদারের মুক্তিতে বাধা নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



আদালতে পাসপোর্ট জমা রাখার শর্তে আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ সেলিমকে আরো এক মামলায় জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। এ নিয়ে তিন মামলায় জামিন পাওয়ায় দিলদারের কারামুক্তিতে আইনগত কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছে আইনজীবীরা।

বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহীম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল দিলদারকে অর্থপাচারের অভিযোগে উত্তরা থানায় করা মামলায় জামিন মঞ্জুর করেন। আদালতে দিলদারের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট এ এম আমিনউদ্দিন ও ব্যারিস্টার মেহেদী হাসান চৌধুরী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ফরহাদ আহমেদ ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল ইউসুফ মাহমুদ মোর্শেদ।

রাজধানীর বনানীর ‘রেইনট্রি’ হোটেলে জন্মদিনের অনুষ্ঠানের নামে ডেকে নিয়ে দুই তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে গত মে মাসে গ্রেপ্তার হন দিলদারের ছেলে সাফাত আহমেদ। ওই ঘটনা নিয়ে তোলপাড় শুরু হলে আপন জুয়েলার্সের সম্পদের তদন্তে নামে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ। পরে গত ৪ জুন ডিএনসিসি মার্কেট, উত্তরা, মৌচাক, সীমান্ত স্কয়ার ও সুবাস্তু ইনম শাখা থেকে আপন জুয়েলার্সের প্রায় ১৫ মণ সোনা ও ৪২৭ গ্রাম ডায়মন্ড জব্দ করে বাংলাদেশ ব্যাংকে পাঠানো হয়। এ বিষয়ে অনুসন্ধান শেষে আপন জুয়েলার্সের মালিক তিন ভাই দিলদার আহমেদ সেলিম, গুলজার আহমেদ ও আজাদ আহমেদের বিরুদ্ধে মামলা করে শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগ। এর মধ্যে দিলদারের বিরুদ্ধে রাজধানীর রমনা, ধানমণ্ডি ও উত্তরা থানায় তিনটি এবং গুলজার ও আজাদের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় পৃথক দুটি মামলা করা হয়। পরে গত ১৪ ডিসেম্বর রমনা থানার মামলায় সেলিম এবং গুলশান থানার মামলায় গুলজার ও আজাদের জামিন দেন হাইকোর্ট। তবে ধানমণ্ডি ও উত্তরা থানার মামলায় দিলদারের জামিন আবেদনের শুনানি এক মাসের জন্য মুলতবি করা হয়। পরে গত ১৬ জানুয়ারি ধানমণ্ডি থানার মামলায় দিলদারের জামিন মঞ্জুর করেন আদালত। তাঁর দুই ভাই গুলজার ও আজাদ এরই মধ্যে কারামুক্ত হয়েছেন।


মন্তব্য