kalerkantho


সংসদে শিক্ষামন্ত্রী

প্রয়োজন তিন হাজার কোটি টাকা, মিলেছে আড়াই শ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



এমপিওভুক্ত (মান্থলি পেমেন্ট অর্ডার) বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের বকেয়া অবসর ও কল্যাণ ভাতা পরিশোধে দুই হাজার ৯৭০ কোটি টাকা প্রয়োজন। বরাদ্দ পাওয়া গেছে আড়াই শ কোটি টাকা। অর্থাৎ দুই হাজার ৭২৪ কোটি টাকার সংকট তৈরি হয়েছে। গতকাল সোমবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সদস্য মো. জিয়াউল হক মৃধার প্রশ্নের লিখিত জবাবে মন্ত্রী জানান, বকেয়া অবসর ভাতা দিতে সরকারের কাছে দুই হাজার ২৭৪ কোটি টাকা চেয়েছে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, শিক্ষক ও কর্মচারী অবসর সুবিধা বোর্ড। একই সঙ্গে তাদের বকেয়া কল্যাণ ভাতা দিতে ৭০০ কোটি টাকা চেয়েছে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট। এই চাহিদার বিপরীতে অবসর সুবিধা বোর্ড চলতি অর্থবছরে মাত্র দেড় শ কোটি টাকা বরাদ্দ পেয়েছে। আর গত ও চলতি অর্থবছর মিলিয়ে মাত্র ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ পেয়েছে কল্যাণ ট্রাস্ট।

উল্লেখ্য, বর্তমানে দেশে বেসরকারি স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৩৮ হাজার ১৫৮। এর মধ্যে এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ২৭ হাজার ৭২২। বিগত অর্থবছরে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মোট বাজেট বরাদ্দের ২৬ হাজার ৮৫৭ কোটি ৭৪ লাখ টাকার মধ্যে এমপিও খাতের জন্যই ছিল ১২ হাজার ২৮৯ কোটি ৭৪ লাখ ৬৭ হাজার টাকা।

এদিকে সংসদে সরকারি দলের সদস্য মো. নুরুল ইসলাম সুজনের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী জানান, বর্তমানে পাঁচ হাজার ৬৭৯টি এমপিওবিহীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা প্রণয়ন করে সম্মতির জন্য অর্থ বিভাগে পাঠানো হয়েছে বলেও তিনি জানান।



মন্তব্য