kalerkantho


সংসদে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী

জাতীয়করণ হচ্ছে না নতুন কোনো বিদ্যালয়

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



এই মুহূর্তে নতুন কোনো বিদ্যালয় জাতীয়করণ করার পরিকল্পনা সরকারের নেই বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান। গতকাল সোমবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে লিখিত প্রশ্নোত্তরে তিনি এ তথ্য জানান। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে শুরু হওয়া অধিবেশনে এসংক্রান্ত প্রশ্নটি উত্থাপন করেন সরকারি দলের সদস্য জিয়াউল হক মৃধা।

মন্ত্রী আরো জানান, ২০১৩ সালের ১ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী দেশের সব রেজিস্টার্ড, এমপিওভুক্ত ও আবেদিত ২৬ হাজার ১৯৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং পার্বত্য জেলায় ইউএনডিপি পরিচালিত দুই হাজার ৩১০টি বিদ্যালয় জাতীয়করণ করা হয়েছে। বর্তমানে এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম বাস্তবায়ন চলমান। এর বাইরে নতুন কোনো বিদ্যালয় জাতীয়করণের পরিকল্পনা সরকারের নেই।

একই সংসদ সদস্যের আরেক প্রশ্নের জবাবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী জানান, দেশের যেসব উপজেলায় কোনো সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কলেজ নেই, সেসব উপজেলায় একটি করে মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও একটি কলেজ সরকারি করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। সে আলোকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে কার্যক্রম চলছে। এমনকি দেশের সব বেসরকারি শিক্ষকের চাকরি জাতীয়করণের পরিকল্পনা আপাতত সরকারের নেই।

বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সদস্য এ কে এম মাঈদুল ইসলামের এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে গত বছরের অক্টোবর পর্যন্ত প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে ২০ হাজার ৮৪৭টি, যার মধ্যে ঢাকা মহানগর, ভোলা, লক্ষ্মীপুর ও মেহেরপুর জেলায় ৩৯৪ জন শিক্ষককে প্রধান শিক্ষকের শূন্য পদে চলতি দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।


মন্তব্য