kalerkantho


সিলেটের সাত মেয়র পদপ্রার্থীর অঙ্গীকার

জয়ে পরিকল্পিত নগর হারলে সহযোগিতা

সিলেট অফিস   

১২ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০



সিলেটকে একটি পরিকল্পিত নগর হিসেবে গড়ে তোলার অঙ্গীকার করেছেন সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক) নির্বাচনের সাত মেয়র প্রার্থী। একই সঙ্গে তাঁরা নির্বাচনে পরাজিত হলে ফল মেনে নিয়ে নগরের উন্নয়নে বিজয়ী প্রার্থীকে সহযোগিতা করাসহ স্বচ্ছতা ও জবাবদিহির জন্য উদ্যোগ গ্রহণেরও প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন ।

গতকাল বুধবার দুপুরে নগরের রিকাবীবাজারে মোহাম্মদ আলী জিমনেসিয়ামে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) আয়োজিত ‘জনগণের মুখোমুখি মেয়র প্রার্থীরা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রার্থীরা এ অঙ্গীকার করেন।

সুজন সিলেটের সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সুজনের সদস্যসচিব ড. বদিউল আলম মজুমদারের সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে নাগরিকরা মেয়র প্রার্থীদের কাছে বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরে।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বদরউদ্দিন আহমদ কামরান বলেন, ‘মেয়রের কাজ শুধু সড়ক ও কালভার্ট উন্নয়ন নয়। একজন নাগরিক সকালে ঘর থেকে বের হয়ে রাতে যাতে নিরাপদে ঘরে ফিরতে পারে—এটি নিশ্চিত করাও মেয়রের দায়িত্ব। আমি এই নগরবাসীর সুখে-দুঃখে অতীতেও যেমন পাশে ছিলাম, আগামীতেও থাকব।’

বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ‘আমি শুধু স্বপ্ন দেখাই না, স্বপ্ন বাস্তবায়ন করি। আমি যা বলি, তাই করি। এই নগরে ২০১০ সালে একটি মাস্টারপ্ল্যান হয়েছিল, যা একেবারেই অবাস্তব ও অনুপযোগী। আগামীতে এটি সংশোধন করে আরো পরিকল্পিত উন্নয়নে সচেষ্ট থাকব।’

নাগরিক কমিটির প্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিম বলেন, নগরের সৌন্দর্য বর্ধন করে পরিকল্পিত তিলোত্তমা নগর গড়ে তুলতে তিনি কাজ করবেন। সেলিম বলেন, ৩০ জুলাইয়ের নির্বাচন যদি সুষ্ঠু হয় তাহলে সিলেটের জনগণ ইতিহাস সৃষ্টি করবে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী মহানগর জামায়াতের আমির এহসানুল মাহবুব জুবায়ের বলেন, ‘সিলেটকে দেশের একটি সুন্দরতম শহর হিসেবে দেখতে চাই। আমি নির্বাচিত হলে এ ব্যাপারে যথাযথ উদ্যোগ নেব।’

 

 

 

 



মন্তব্য