kalerkantho


এক চিঠিতেই স্বপ্নভঙ্গ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি   

২০ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



এক চিঠিতেই স্বপ্নভঙ্গ

সংসদ সদস্যের (এমপি) এক ডিও লেটারে স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার চার গ্রামের সাত হাজার মানুষের। ওই এলাকায় টেন্ডার হওয়া এক কিলোমিটার সড়ক পাকাকরণের কাজ শুরু হওয়ার সময় ডিও লেটার দিয়ে কাজটি বন্ধ করে দিয়েছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য (চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২) মুহা. গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস। তাঁর ইচ্ছায় কাজটি নিয়ে যাওয়া হয়েছে দেড় কিলোমিটার দূরে পাশের আরেক ইউনিয়নের একটি সড়কে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে ঝিকড়া, মহানল, ভাসতা ও ভজইল গ্রামের মানুষ। এলাকাবাসীর অভিযোগ, নাচোল উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুল আলমের নির্মাণাধীন শিশু পার্ক চালুর জন্যই কাজটি সরানো হয়েছে।

অবশ্য শামসুল আলম বলছেন, তিনি পার্ক নির্মাণকাজ বন্ধ করে দিয়েছেন। কাজেই পার্কের সঙ্গে এই রাস্তার কোনো সম্পর্ক নেই। এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নাচোলের ভুজইল ঝিকড়া গ্রাম থেকে নিজামপুর ইউনিয়ন পরিষদ পর্যন্ত সাড়ে তিন কিলোমিটার সড়কটি কার্পেটিংয়ের জন্য দীর্ঘদিন ধরে দাবি জানিয়ে আসছিল স্থানীয়রা। এর পরিপ্রেক্ষিতে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) এক কিলোমিটার সড়ক কার্পেটিং করে দেয়। এরপর ‘অগ্রাধিকার ভিত্তিতে গুরুত্বপূর্ণ পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প-২’-এর আওতায় গত বছরের শেষদিকে হাড়িপুকুর থেকে নামো ঝিকড়া পর্যন্ত আরো এক কিলোমিটার সড়ক পাকাকরণের জন্য দরপত্র আহ্বান করে এলজিইডি। এর ব্যয় ধরা হয় ৪৯ লাখ ৬০ হাজার ৬৬৪ টাকা। দরপত্রে সর্বনিম্ন দরদাতা হিসেবে ঠিকাদার আবুল হোসেনকে ১৯ নভেম্বর কার্যাদেশ দেয় এলজিইডি। প্রকল্প এলাকায় সড়কে বেড (রাস্তা খুুঁড়ে বালু-খোয়া ফেলা) তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি শুরু করে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। প্রকল্প এলাকায় প্রয়োজনীয় নির্মাণসামগ্রীও ফেলা হয়। এরই মধ্যে ৫ ডিসেম্বর সংসদ সদস্য গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস সড়কটি নির্মাণের স্থান পরিবর্তনের জন্য ডিও লেটার দেন এলজিইডির প্রকল্প পরিচালককে। তিনি এই সড়কের পরিবর্তে এর দেড় কিলোমিটার দূরে পাশের নেজামপুর ইউনিয়নের গোসাইপুর থেকে খাঁড়ি পর্যন্ত এক কিলোমিটার সড়ক কার্পেটিংয়ের অনুরোধ জানান। এর পরিপ্রেক্ষিতে এলজিইডির প্রকল্প পরিচালক মো. আবদুল ওয়াদুদ স্থান পরিবর্তনের জন্য ১১ ডিসেম্বর চাঁপাইনবাবগঞ্জ এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলীকে নির্দেশ দেন। ফলে আটকে গেছে হাড়িপুকুর থেকে নামো ঝিকড়া পর্যন্ত সড়কের নির্মাণকাজ।

নাচোল ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মেসবাহুল হক জানান, দরপত্র সম্পন্নের পর যখন রাস্তার কাজ শুরু হবে, ঠিক তখন সংসদ সদস্য ডিও দিয়ে কাজটি বন্ধ করে দিয়েছেন। এতে সাধারণ মানুষ চরম ক্ষুব্ধ।

এলজিইডির নাচোল উপজেলা প্রকৌশলী মাসুদ ই মোহাম্মদ বলেন, সংসদ সদস্যের ডিও লেটারের পরিপ্রেক্ষিতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ নির্মাণাধীন সড়কের স্থান পরিবর্তন করেছে। এখন সে মোতাবেক কাজ হবে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুল আলম বলেন, সড়ক নির্মাণের স্থান পরিবর্তনে তাঁর কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। অনেক আগেই তিনি পার্ক নির্মাণের কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন। কাজেই রাস্তা পাকাকরণের সঙ্গে পার্কের কোনো সম্পর্ক নেই। কিছু লোক অযথা এ নিয়ে বিভ্রান্তির চেষ্টা করছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ (নাচোল, গোমস্তাপুর ও ভোলাহাট) আসনের সংসদ সদস্য মুহা. গোলাম মোস্তফা বিশ্বাসের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি। পরে খুদেবার্তা পাঠানো হলেও তিনি সাড়া দেননি।


মন্তব্য