kalerkantho


বিআইডাব্লিউটিসির ভেহিকল ওয়ে-ব্রিজ স্কেল

গোয়ালন্দের মহাসড়কে ‘বিষফোড়া’

গণেশ পাল, গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী)   

১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



গোয়ালন্দের মহাসড়কে ‘বিষফোড়া’

দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স এলাকায় বিআইডাব্লিউটিসির ভেহিকল ডিজিটাল ওয়ে-ব্রিজ স্কেলটি ‘বিষফোড়া’ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ছবিটি গত সোমবার তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স এলাকায় বিআইডাব্লিউটিসির ভেহিকল ডিজিটাল ওয়ে-ব্রিজ স্কেলটি ‘বিষফোঁড়া’ হয়ে দাঁড়িয়েছে। অপরিকল্পিতভাবে মহাসড়কের ঝুঁঁকিপূর্ণ এলাকায় স্কেলটি নির্মাণের ফলে প্রতিদিন সেখানে পণ্যবাহী ট্রাকের দীর্ঘ সারি তৈরি হয়।

এতে হাসপাতালসহ উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ বেশ কিছু সরকারি অফিসের প্রবেশ পথ প্রায়ই বন্ধ থাকায় ভোগান্তিতে পড়ে এলাকাবাসী।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থার (বিআইডাব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া ঘাট অফিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দেশের ব্যস্ততম দৌলতদিয়া ঘাট দিয়ে ঢাকাগামী বিভিন্ন গাড়ির পাশাপাশি প্রতিদিন গড়ে ৮০০ পণ্যবাহী ট্রাক ফেরিতে পদ্মা নদী পার হয়। কিন্তু দৌলতদিয়া ঘাটে নদী পার হতে আসা পণ্যবোঝাই ট্রাকগুলোর ওজন নিয়ন্ত্রণের কোনো ব্যবস্থা সেখানে ছিল না। এতে বিআইডাব্লিউটিসি প্রতিদিন লক্ষাধিক টাকার অতিরিক্ত রাজস্ব আয় থেকে বঞ্চিত হচ্ছিল। এ অবস্থায় ২০১৪ সালে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়কের গোয়ালন্দ উপজেলা ভূমি অফিসের পাশে একটি ভেহিকল ডিজিটাল ওয়ে-ব্রিজ স্কেল (ট্রাকের ওজন পরিমাপক যন্ত্র) স্থাপন করে বিআইডাব্লিউটিসি। তখন থেকে প্রতিটি পণ্যবাহী ট্রাক স্কেলটিতে সঠিক ওজন মেপে রশিদ নিয়ে দৌলতদিয়া ঘাট টার্মিনালে প্রবেশ করে আসছে। এদিকে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে গত ২৩ জুলাই থেকে স্কেলটি বিকল হয়ে আছে। তাই পুরনো স্কেল সরিয়ে সেখানে নতুন স্কেল স্থাপনের জন্য দ্রুত কাজ চালাচ্ছে বিআইডাব্লিউটিসি।

এদিকে এলাকার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ওই স্কেল স্থাপনের ফলে স্কেল থেকে জমিদার ব্রিজ পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার মহাসড়কের একপাশে প্রতিনিয়ত ট্রাকের দীর্ঘ সারির সৃষ্টি হয়।

এতে উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালসহ বেশকিছু সরকারি অফিসের প্রবেশ পথ প্রায়ই বন্ধ থাকে।

গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আজিজুর রহমান জানান, উপজেলা হাসপাতাল গেটের সামনে দৌলতদিয়া-খুলনা মহাসড়ক। পাশেই ওয়ে-ব্রিজ স্কেল স্থাপন করায় সেখানে ট্রাকের দীর্ঘ সারি তৈরি হয়ে প্রায়ই বন্ধ থাকে হাসপাতালের প্রবেশ পথ। এতে রোগীবাহী জরুরি অ্যাম্বুল্যান্স চলাচলসহ হাসপাতালে আসা রোগীদের স্বাভাবিক যাতায়াত মারাত্মকভাবে ব্যাহত হয়।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ বি এম নুরুল ইসলাম বলেন, “যথাযথ স্থানে নির্মাণ না করায় বিআইডাব্লিউটিসির ওয়ে-ব্রিজ স্কেলটি এখন এলাকার ‘বিষফোঁড়া’ হয়ে দাঁড়িয়েছে। জরুরি ভিত্তিতে স্কেলটি অন্যত্র স্থানান্তরের জোর দাবি জানাচ্ছি। ”

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাসান হাবিব বলেন, ‘এলাকার জনদুর্ভোগ নিরসনে ট্রাকের ওজন পরিমাপক ওই যন্ত্রটি ব্যস্ততম উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্সের সামনে থেকে সরিয়ে সুবিধাজনক কোনো জায়গায় স্থাপনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’ 

বিআইডাব্লিউটিসির হেড কোয়ার্টারের উপমহাব্যবস্থাপক (কো-অর্ডিনেশন) এস এম আশিকুজ্জামান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তক্রমে গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ এলাকায় ভেহিকল ডিজিটাল ওয়ে-ব্রিজ স্কেলটি স্থাপন করা হয়েছিল। তবে স্থানীয় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে স্কেলটি দ্রুত সরিয়ে নেওয়া হবে। ’


মন্তব্য