kalerkantho


ভ্রাম্যমাণ আদালত

আটজনকে কারাদণ্ড জরিমানা, জাল জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর ও হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



হবিগঞ্জের মাধবপুরের বেঙ্গাডুবা এলাকায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে দুই ভাইকে গত সোমবার রাতে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। দণ্ডিতরা হলেন উডজেলার রতনপুর গ্রামের মৃত নানু মিয়ার ছেলে কুদরত আলী (৩৮) ও আতাব মিয়া (২৭)।

একই উপজেলায় মাদক কারবারের অভিযোগে তিন ব্যক্তিকে গতকাল মঙ্গলবার কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ অদালত। দণ্ডিতরা হলেন উপজেলার তেলিয়াপাড়া বাগবাড়ী গ্রামের মিনারা বেগম (৫০), তাঁর ছেলে সাদেক মিয়া (২৮) ও একই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক (৪৫)। মিনারাকে ছয়  মাস এবং সাদেক ও রাজ্জাককে দুই বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। আদালত দুটি পরিচালনা করেন ইউএনও মোহাম্মদ মোকলেছুর রহমান।

হবিগঞ্জ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা খায়রুল আলম জানান, মঙ্গলবার দুপুরে দুই কেজি গাঁজাসহ মিনারা, সাদেক ও রাজ্জাককে আটক করা হয়।

এ ছাড়া গতকাল মাধবপুরে মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রির দায়ে দুটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানকে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর মৌলভীবাজারের সহকারী পরিচালন ও হবিগঞ্জের অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত মো. আল-আমিন এ জরিমানা করেন। প্রতিষ্ঠান দুটি হলো হরিলাল পাল স্টোর  ও ইত্যাদি স্টোর।

এদিকে ফরিদপুর সদর উপজেলার কানাইপুর বাজারের মেসার্স ওয়াসিস ফুড কর্নার নামে একটি দোকান থেকে প্রায় পাঁচ লাখ টাকার ৫০ লাখ মিটার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল জব্দ এবং মালিককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

গতকাল ফরিদপুরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মতিউর রহমান খানের নেতৃত্বে এ আদালত পরিচালনা করা হয়।

র‌্যাব-৮, ফরিদপুর ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছউদ্দিন জানান, জরিমানার আগে দোকান মালিক কমল কুমার শীলকে আটক করা হয়েছিল। জব্দ করা জাল পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে।


মন্তব্য