kalerkantho


বাগাতিপাড়া

কলেজে ঢুকে শিক্ষককে হাতুড়িপেটা

নাটোর প্রতিনিধি   

৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



নাটোরে বাগাতিপাড়ায় চাঁদপুর টেকনিক্যাল বিএম কলেজের ভেতরে ঢুকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ লুত্ফর রহমানকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। তাঁকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। লুত্ফর রহমান কলেজটির মনোবিজ্ঞানের প্রভাষক।

লুত্ফর রহমানের আত্মীয়স্বজন জানিয়েছে, তাঁর দুই হাতের দুটি আঙুল ভেঙে দেওয়াসহ মাথায় ও হাতে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। এ ছাড়া ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁর দুই পায়ের রগ কেটে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।

লুত্ফর রহমানের চাচাতো ভাই রবিউল ইসলাম জানান, লুত্ফর সকাল ৯টার দিকে কলেজে যান। পরে কলেজের পাশের ডুমরাই ও চাঁদপুর এলাকার ছলেমান ফকির, ওহাব ফকির, শহীদ ছালামসহ কয়েকজন লুত্ফরের অফিসকক্ষে ঢোকে। তারা লুত্ফরকে হাতুড়ি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে অজ্ঞান অবস্থায় ফেলে যায়। সংবাদ পেয়ে পুলিশের সহায়তায় তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে বাগাতিপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রবিউল জানান, অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে কলেজের অধ্যক্ষ মকবুল হোসেনকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে লুত্ফর রহমানকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব দেওয়া হয়। সম্প্রতি মকবুল ও তাঁর লোকজন লুত্ফরকে দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়ে আসছিলেন। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার এ হামলার ঘটনা ঘটেছে।

মকবুল হোসেন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, বিষয়টি দুঃখজনক। লুত্ফর রহমানের ওপর কারা হামলা করেছে, সে বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না।

বাগাতিপাড়া থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, সংবাদ পেয়ে পুলিশ লুত্ফর রহমানকে কলেজ থেকে উদ্ধারের পর হাসপাতালে ভর্তি করে। এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


মন্তব্য