kalerkantho


বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

ছাত্রীকে হলছাড়া করল ছাত্রলীগ

বাকৃবি প্রতিনিধি   

১০ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ছাত্রীকে হলছাড়া করল ছাত্রলীগ

কর্মসূচিতে অংশ না নেওয়ায় বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) বেগম রোকেয়া হলের এক ছাত্রীকে গত সোমবার রাতে হল থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। এর প্রতিবাদে প্রথম বর্ষের ওই ছাত্রী হলের প্রধান ফটকে আমরণ অনশন শুরু করলে কর্তৃপক্ষ তাঁকে হলের ভেতরে নিয়ে যায়। ওই ছাত্রীর নাম আফসানা আহমেদ ইভা। তিনি সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের (বাসদ-খালেকুজ্জামান) কর্মী। 

এদিকে ইভার বিরুদ্ধে হল প্রভোস্টসহ জ্যেষ্ঠ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বেয়াদবির অভিযোগ এনে হল ছাত্রলীগের সহসভাপতি তানিয়া আফরিন সিন্থিয়ার নেতৃত্বে হলের প্রধান ফটকে সাধারণ শিক্ষার্থীর ব্যানারে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে মানববন্ধন করা হয়েছে। তারা ইভাকে হল থেকে বের করে দেওয়ারও দাবি জানান।

প্রভোস্ট বরাবর ইভার অভিযোগ ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ৪ জানুয়ারি ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে প্রথম বর্ষের ছাত্রীদের সঙ্গে ইভাকে যেতে জোর করেন ছাত্রলীগ নেত্রীরা। তিনি যেতে অস্বীকৃতি জানান। এর জেরে সোমবার রাতে সিন্থিয়াসহ ছাত্রলীগকর্মীরা ইভাকে রোকেয়া হল থেকে বিছানাপত্রসহ বের করে দেন। পরে তাঁকে হল প্রভোস্ট সাময়িকভাবে হলের সম্প্রসারিত ভবনে থাকতে বললে তিনি অস্বীকৃতি জানান এবং রাত ৩টা পর্যন্ত হল ফটকে অবস্থান করেন। সকালে তিনি প্রধান ফটকে আমরণ অনশন শুরু করলে দুই ঘণ্টা পর তাঁকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আতিকুর রহমান খোকন প্রক্টর কার্যালয়ে নিয়ে যান। দুপুরে ইভা হলে থাকার দাবিতে আবার প্রধান ফটকে অবস্থান নিলে সাবেক প্রক্টর ও সহকারী প্রক্টর তাঁকে হলে নিয়ে যান। এর আগেও ইভাকে ছাত্রলীগের কর্মসূচিতে না যাওয়ায় হয়রানি করা হয়। তিনি অভিযোগ করলেও প্রভোস্ট ব্যবস্থা নেননি।

রোকেয়া হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. ইসমত আরা বেগম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তদন্ত কমিটি গঠন করে ব্যবস্থা নেওয়ার আগে ওই ছাত্রীকে সম্প্রসারিত ভবনে অবস্থান করতে বলা হয়েছে।

বাকৃবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিয়া মোহাম্মদ রুবেল বলেন, এই ঘটনার সঙ্গে ছাত্রলীগের কোনো সম্পৃক্ততা নেই।


মন্তব্য