kalerkantho


রংপুর অঞ্চলে শীত বাড়ার আশঙ্কা

রংপুর অফিস   

১৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



রংপুর অঞ্চলে চলছে মাঝারি ও ভারী শৈত্যপ্রবাহ। সপ্তাহখানেকের বেশি সময় ধরে কনকনে শীত আর হিমেল হাওয়ায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে এই অঞ্চলের জনজীবন। এরই মধ্যে উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ে দেশের ইতিহাসে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে। গত বুধবার থেকে গতকাল শনিবার পৌষ মাসের শেষ দিন পর্যন্ত ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন হয়ে আছে উত্তরের আকাশ। আজ শুরু হচ্ছে মাঘ মাস। মাঘে শীত আরো তীব্র হবে—এমন আশঙ্কায় শঙ্কিত হয়ে পড়েছে সাধারণ মানুষ।

রংপুর আবহাওয়া অফিসের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী গতকাল শনিবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত কয়েক দিন ধরে এমন তাপমাত্রা থাকায় জবুথবু হয়ে পড়েছে রংপুর অঞ্চলের জনজীবন। প্রচণ্ড শীতে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছে হাঁস-মুরগি ও গরু-ছাগল।

রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শিশু বিভাগের প্রধান ডা. বিকাশ মজুমদার জানান, শীতজনিত রোগবালাই বিশেষ করে নিউমোনিয়া, কোল্ড ডায়রিয়া, শ্বাসকষ্ট ও জ্বর ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। আক্রান্তদের বেশির ভাগই শিশু ও বয়স্ক। তিনি বলেন, এসব রোগ থেকে শিশুকে রক্ষা করতে গরম কাপড় পরানো জরুরি।

রংপুর জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা ফরিদুল হক জানান, এক লাখ কম্বল চেয়ে তাঁরা দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ে চাহিদাপত্র দিয়েছিলেন। কিন্তু বরাদ্দ পেয়েছেন মাত্র ৫৪ হাজার।


মন্তব্য