kalerkantho


গাজীপুরে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি

স্কুল মাঠ এখন এঁদো ডোবা

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর   

২২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নাওজোর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে দীর্ঘদিন ধরে দূষিত পানি জমে আছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা।

স্কুল ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পাশে সিটি করপোরেশনের ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে ১৯১১ সালে নাওজোর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি স্থাপিত হয়। বর্তমানে এ বিদ্যালয়ে পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে। শিক্ষক আছেন ১১ জন। ছয় মাস ধরে স্কুলের মাঠে জমে আছে আশপাশের বাসাবাড়ি, শিল্প-কারখানা ও বাজারের দূষিত পানি। এতে স্কুল মাঠটি দূষিত পানির ডোবায় পরিণত হয়েছে। পানিতে জন্মেছে  শেওলা ও কচুরিপানা। পানি থেকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। এ কারণে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। তাদের স্কুলে আসা-যাওয়াসহ খেলাধুলা ও চলাফেরায় সমস্যা হচ্ছে। তা ছাড়া বৃষ্টি হলেই ক্লাসরুমে পানি ঢুকছে। সব মিলিয়ে চরম দুর্ভোগে রয়েছে এ স্কুলের শিক্ষর্থীরা। 

প্রধান শিক্ষিকা শাহানা পারভীন জানান, স্কুলের উত্তর পাশে অফিস ভবন, দক্ষিণ-পশ্চিম পাশে আধাপাকা শ্রেণিকক্ষ ও পূর্ব পাশে রাস্তা। স্কুলের মাঠটি নিচু থাকায় পাশের শিল্প-কারখানা, বাজার ও বাসাবাড়ির দূষিত পানি এখানে এসে জমা হয়। গত বর্ষায় শ্রেণিকক্ষে পানি জমায় কয়েক দফা ক্লাস বন্ধ করতে হয়েছে। স্কুলটি এ গ্রেডের হলেও এসব কারণে পড়াশোনার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। মাঠে শিক্ষার্থীরা খেলাধুলা করতে পারছে না। বিষয়টি গাজীপুর সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা হারুন অর রশিদ ও সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা শরীফ উদ্দিন ভূঁইয়াকে জানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে স্কুলের সভাপতি আব্দুল বারেক সরকার বলেন, ‘আশপাশের ড্রেন ও পাইপলাইন আবর্জনায় ভরাট হয়ে যাওয়ায় পানি যথাস্থানে নামতে পারছে না। স্কুলটি নিচু স্থানে থাকায় দূষিত পানি মাঠে জমছে। আমরা চেষ্টা করছি সমস্যা সমাধান করতে। এ জন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন।’ 

গাজীপুর সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. হারুন অর রশিদ বলেন, ‘স্কুল মাঠে অনেক দিন ধরে পানি জমে আছে বলে শুনেছি। শিগগিরই স্থানীয় লোকজন নিয়ে এ সমস্যা সমাধান করা হবে।’


মন্তব্য