kalerkantho


সোনারগাঁয় যুবলীগ নেতার টাকা নিয়ে পালাল চালক

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১৭ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



সোনারগাঁয় এক যুবলীগ নেতার টাকা ও কাগজপত্র নিয়ে পালিয়ে গেছে তাঁর গাড়িচালক। এ ঘটনায় গতকাল সোমবার সোনারগাঁ থানায় লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী দেলোয়ার হোসেন।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, গাজীপুরের হায়দারাবাদ গ্রামের সফু মিয়ার ছেলে সেলিম মিয়া উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি ও ব্যবসায়ী দেলোয়ার হোসেনের মালিকানাধীন আল মোবারকা পরিবহনে দুই বছর ধরে চালক হিসেবে চাকরি করে আসছে। সোমবার সকালে দেলোয়ার হোসেনের কাছ থেকে ৯০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় সে। তাঁর মুঠোফোনটি এখন বন্ধ রয়েছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘আমার মালিকানাধীন গাড়ি মেরামতের জন্য নেওয়া ৯০ হাজার টাকা ও গাড়ির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে পালিয়ে গেছে চালক সেলিম মিয়া। তাকে কোথাও খুঁজে না পেয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছি।’ সোনারগাঁ থানার ওসি মোর্শেদ আলম বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। চালককে খুঁজে বের করার জন্য অভিযান চলছে।’

ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ডাকাতির ঘটনায় মামলা

সোনারগাঁর নোয়াগাঁও ইউনিয়নের ধন্দির বাজারের তিনটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে ডাকাতির ঘটনায় মামলা হয়েছে। গতকাল সোমবার ক্ষতিগ্রস্ত জুয়েলারি ব্যবসায়ী সজল মিয়া সোনারগাঁ থানায় এ মামলা করেন।

মামলার বিবরণীতে সজল মিয়া উল্লেখ করেন, গত ১১ এপ্রিল প্রতিদিনের মতো বাজারের সব দোকানপাট রাত ৯টায় বন্ধ করে বাসায় চলে যান। রাত ২টায় ৮-১০ জনের একদল ডাকাত বাজারে প্রবেশ করে প্রথমে নিরাপত্তা প্রহরীদের হাত-পা বেঁধে ফেলে। এ সময় সজল মিয়ার মালিকানাধীন মা জুয়েলার্স, তাঁর পাশের দোকান খান ইলেকট্রনিকস ও আজিজ ট্রেডার্সের দোকানের শাটারের তালা ভেঙে স্বর্ণালংকার, টাকা, মোবাইল ফোনসেট, সিম কার্ডসহ বিভিন্ন মাল লুট করে নিয়ে যায়। ডাকাতির সময় পাশের নদীর জেলেরা এসে বাধা দিলে জেলেদেরও বেঁধে ফেলে ডাকাতদল। পরে একজন জেলে কৌশলে অন্য স্থানে গিয়ে চিৎকার করে গ্রামবাসীদের ডাকলে দ্রুত পালিয়ে যায় ডাকাতদল।



মন্তব্য