kalerkantho


ছাত্রদল নেতার ছুরিকাঘাতে ছাত্রলীগকর্মী খুন

মাকে হাসপাতালে রেখে লাশ হল ছেলে

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, রংপুর   

১৩ জুন, ২০১৮ ০০:০০



পাওনা টাকা নিয়ে বিরোধের জেরে রংপুরের বদরগঞ্জে ছাত্রদল নেতা ফিরোজ শাহর ছুরিকাঘাতে রেজাউল ইসলাম (১৬) নামে এক ছাত্রলীগকর্মী নিহত হয়েছে। অসুস্থ মাকে হাসপাতালে ভর্তি করে বাড়ি ফেরার পথে রেজাউল হামলার শিকার হয়। মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটে গত সোমবার রাতে বদরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন চত্বরে। এ ঘটনায় চারজনের বিরুদ্ধে রেলওয়ে থানায় মামলা করা হয়েছে। পুলিশ অভিযুক্ত ফিরোজের বড় ভাই ইলিয়াস আলীকে গ্রেপ্তার করেছে।

নিহত রেজাউল উপজেলার কালুপাড়া ইউনিয়নের শংকরপুর মধ্যপাড়ার আব্দুল মজিদ মিয়ার ছেলে ও পৌর শহরের কলেজিয়েট স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্র। অভিযুক্ত ফিরোজ ছাত্রদল পৌর শাখার আইনবিষয়ক সম্পাদক ও কলেজিয়েট স্কুলসংলগ্ন বটপাড়ার মৃত ইসলাম উদ্দিনের ছেলে। ফিরোজের নামে বদরগঞ্জ থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। সে মাদকাসক্ত বলে জানা গেছে।

এলাকাবাসী ও স্বজনের সূত্রে জানা যায়, রেজাউল তার অসুস্থ মা হাওয়া বেগমকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে রাত সাড়ে ১০টার দিকে নিজ বাড়ি ফিরছিল। ওত পেতে থাকা ফিরোজ দলবল নিয়ে বদরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় রেজাউলকে একলা পেয়ে আটক করে। পরে ফিরোজের বন্ধু সম্রাট জাপটে ধরে রেজাউলকে। আর ফিরোজ প্রকাশ্যে রেজাউলের বুকের বাঁ পাশে ধারালো ছুরি ঢুকিয়ে দেয়। এতে রেজাউলের আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে ফিরোজ দলবলসহ পালিয়ে যায়। রেজাউলকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বদরগঞ্জ থানার ওসি আনিছুর রহমান বলেন, একজন গ্রেপ্তার হয়েছেন।


মন্তব্য