kalerkantho


শীতে ১২ দিনে আটজনের মৃত্যু

সাতক্ষীরা হাসপাতালে ভর্তি তিন শতাধিক

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



সাতক্ষীরায় শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া, নিউমোনিয়াসহ শীতজনিত রোগের প্রকোপ বেড়েছে। গত ১২ দিনে তীব্র শীতে পাঁচ শিশুসহ আটজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে তিন শতাধিক।

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, এ মাসে সদর হাসপাতালে নিউমোনিয়া, শ্বাসকষ্টসহ ঠাণ্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছে ১৪৭ শিশু। এ ছাড়া ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হয়েছে ৭৭ জন। একইভাবে সাতক্ষীরা শিশু হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে ৩৬ শিশু।

সাতক্ষীরা শহরের মুনজিতপুর এলাকার আমিনুর রহমান আলম জানান, তাঁর মেয়ের বয়স দুই বছর। হঠাৎ সে ডায়রিয়া ও জ্বরে আক্রান্ত হয়। প্রথমে তাকে ডাক্তার দেখানো হলে সুস্থ না হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর এলাকার খোকন জানান, তাঁর ছেলের বয়স দুই বছর। প্রচণ্ড শীতে সে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়। তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করার পর অবস্থার অবনতি হলে খুলনা শহরের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

সদর হাসপাতালের স্টাফ নার্স রাবেয়া খাতুন বলেন, টানা শৈত্যপ্রবাহের কারণে শীতজনিত রোগ বেড়েছে। গত ১২ দিনে বিভিন্ন বয়সী তিন শতাধিক রোগী সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তাদের আন্তরিকতার সঙ্গে চিকিৎসাসেবা দেওয়া হচ্ছে।

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা. মো. সামছুর রহমান জানান, শিশু ও বয়স্করা কোল্ড ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়ায় বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। প্রতিদিন সদর হাসপাতালে ডায়রিয়া রোগী ১০ থেকে ১৫ জন ভর্তি হচ্ছে। নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হচ্ছে ২০ থেকে ২৫ জন। তা ছাড়া বহির্বিভাগে প্রতিদিন ৫০ থেকে ৬০ জন রোগী আসছে।

সাতক্ষীরা শিশু হাসপাতালের মেডিক্যাল অফিসার ডা. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, শৈত্যপ্রবাহে অভিভাবকদের অসচেতনতার কারণে শিশুরা কোল্ড ডায়রিয়া, শ্বাসকষ্ট ও নিউমোনিয়ায় বেশি আক্রান্ত হচ্ছে। গত ১২ দিনে এই হার বেড়েছে।

এদিকে সাতক্ষীরা আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জুলফিকার আলী রিপন জানান, সাতক্ষীরায় জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে গড় তাপমাত্রা ৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শীত আগের চেয়ে কিছুটা কমেছে। তা ছাড়া বিভিন্ন সংগঠনের মাধ্যমে সাতক্ষীরার শীতার্তদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হচ্ছে।


মন্তব্য