kalerkantho


বেহাল বেনাপোল-যশোর মহাসড়ক

চলছে ‘সংস্কার খেলা’

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ধুলাবালির ওপরই দায়সারা সংস্কারকাজ চলছে বেনাপোল-যশোর মহাসড়কে। ফলে সংস্কারের কিছুদিন পর আগের অবস্থায়ই ফিরে আসে সড়ক। এই ‘সংস্কার খেলা’ চলছে দীর্ঘদির ধরে। গুরুত্বপূর্ণ এই মহাসড়কের একটি সেতুও ঝুঁকিপূর্ণ। এসব কারণে যশোর থেকে বেনাপোল যেতে কয়েক গুণ সময় লাগছে। ভুক্তভোগী গাড়িচালক ও সাধারণ মানুষ এ নিয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে। সড়কটিতে জরুরি ও টেকসই সংস্কারকাজ করা না হলে এ পথে যেকোনো সময় বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করে তারা।

বুধবার সকালে যশোর-বেনাপোল মহাসড়কে সড়ক ও জনপথ বিভাগকে (সওজ) তাদের একটি পরিবহনে (মিনি ট্রাক) পাথর ও কিছু পিচ এনে তা দিয়ে নিম্নমানের ইট ও ধুলাবালির ওপর দায়সারা সংস্কারকাজ করতে দেখা যায়। এই নিম্নমানের কাজ করায় বিভিন্ন গাড়ির যাত্রী ও ট্রাকচালকদের অনেক প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় সংস্কারকাজে নিয়েজিত শ্রমিকদের।

সম্প্রতি ঝিকরগাছা পৌর সদরের যশোর-বেনাপোল মহাসড়ক বেহাল হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে শহরের ঝিকরগাছা সেতুর দুই পাশেসহ মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে বড় বড় গর্ত তৈরি হয়েছে। পুরনো ও ঝুঁকিপূর্ণ সেতুটির দুই দিকে মহাসড়কে কয়েক শ ফুট করে ইটের সলিংয়ের কারণে মানুষের ভোগান্তি অনেক বেড়েছে। প্রায়ই কোনো না কোনো গাড়ি বিকল হয়ে পড়ে থাকে সেতুটির ওপর। ফলে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। বেনাপোল ও ভোমরা বন্দর থেকে ছেড়ে আসা পণ্যবাহী হাজার হাজার ট্রাক, ঢাকা-কলকাতার যাত্রীবাহী বাস দীর্ঘ সময় ধরে ওই সেতুতে ও মহাসড়কে দাঁড়িয়ে থাকে। গাড়ির অতিরিক্ত চাপে সেতুটি ভেঙে পড়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছে ঝিকরগাছাবাসী।

যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের লাউজানী থেকে বেনেয়ালী বাজার পর্যন্ত গিয়ে দেখা গেছে রাস্তা বেহাল। ট্রাকচালকরা বলছেন, রাস্তা খারাপ হওয়ায় যশোর থেকে বেনাপোল আসতে বর্তমানে তিন-চার গুণ সময় লাগছে। এ ছাড়া পারবাজার এলাকায় মহাসড়কের দুই ধারে মাটি নেই। উপজেলা শহর থেকে পাশের (মহাসড়কের) সংযোগ সড়কগুলোও বেহাল। যশোর-বেনাপোল মহাসড়কসহ ঝিকরগাছার সব রাস্তা দ্রুত সংস্কারের দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।


মন্তব্য