kalerkantho


মাকে মারধর

মাতাল ছেলের তিন মাসের কারাদণ্ড

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি   

১৫ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



প্রতিনিয়ত মাদকসেবন করে মা নূরনাহার বেগমকে মারধর, ঘর ভাঙচুরসহ পরিবারের সদস্যদের ওপর নির্যাতন করে আসছিল মনজুর আলম (৩৩)। একপর্যায়ে নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে থানা পুলিশের দ্বারস্থ হন মা নূর নাহার ও তিন বোন।

তাঁদের লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর গত সোমবার বিকেলে মাতাল অবস্থায় মনজুরকে পুলিশ আটক করে নিয়ে যায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে। এ সময় মনজুর আলম দোষ স্বীকার করেন। আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান তাঁকে তিনমাসের কারাদণ্ড দিয়ে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

চকরিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) গাজী মাঈন উদ্দিন জানান, তিনমাসের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত মনজুর আলম উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের মণ্ডলপাড়ার শফি আলমের ছেলে।

চকরিয়া থানার ওসি মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘ষাটোর্ধ্ব নূর নাহার ও তাঁর তিন কন্যা সোমবার সকালে এসে মাদকাসক্ত মনজুর আলমের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দেন। এ সময় মা নূর নাহার নির্যাতনের বর্ণনা দিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন। পরে বিষয়টি ইউএনওর সঙ্গে শেয়ার করে বিকেলে মাতাল অবস্থায় আটক করা হয় মনজুরকে। এর পর নিয়ে যাওয়া হয় ভ্রাম্যমাণ আদালতে। সেখানে দোষ স্বীকার করায় আদালত মনজুরকে তিনমাসের কারাদণ্ড দিয়ে জেলহাজতে পাঠান।


মন্তব্য