kalerkantho


আগুন নেভাতে গিয়ে প্রাণ গেল ব্যবসায়ীর

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



আগুন নেভাতে গিয়ে প্রাণ গেল ব্যবসায়ীর

আবু কাউছার

নগরীর লালখানবাজার এলাকায় আগুন নেভাতে গিয়ে আবু কাউছার (৪২) নামে একজন ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

আগ্রাবাদ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক মো. জসীম উদ্দিন জানান, বিকেল তিনটা ২৫ মিনিটে লালখানবাজার মমতা ক্লিনিকের অদূরে একটি ঘরে আগুন লাগার সংবাদ পেয়ে দ্রুত তিনটি অগ্নিনির্বাপণ গাড়ি পাঠানো হয়। গাড়িগুলো ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৩টা ৫০ মিনিটের সময় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। অগ্নিনির্বাপণের এক পর্যায়ে একজন লোক আহত হলে সঙ্গে সঙ্গে তাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রান্নাঘরের গ্যাসের চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। এতে দুই লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। নিহত ব্যবসায়ী আবু কাউছার চট্টগ্রাম জেলার লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া গ্রামের বাসিন্দা। তাঁর বাবার নাম আবদুর রশিদ। তিনি একজন সফল মত্স্য খামারি। পাশাপাশি আবাসনসহ একাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আছে তাঁর। এক মেয়ে ও এক ছেলের জনক আবু কাউছার সামাজিক কর্মকাণ্ডের কারণে জনপ্রিয় ছিলেন।

সরেজমিন দেখা গেছে, লালখানবাজার এলাকার মাতৃছায়া নামের একটি ফ্ল্যাট বাড়ির দ্বিতীয় তলার ফ্ল্যাটের বাসিন্দা ছিলেন আবু কাউছার। তাঁর বাসার লাগোয়া পাশের প্লটের একটি ঘরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এ সময় তিনি প্রথমে নিজের ফ্ল্যাট থেকে পানি দিয়ে আগুন নির্বাপণের চেষ্টা চালান। পরে নিচতলায় নেমে পানির পাইপ নিয়ে উঠেন সীমানা প্রাচীরে। সেই সীমানা প্রাচীর থেকে পানি ঢেলে আগুন নেভানোর চেষ্টার সময়ই তিনি পড়ে যান পাশের ভবনের বেসমেন্টে। অন্তত ১৫ ফুট উপর থেকে পড়ে তিনি মাথায় গুরুতর আঘাত পান।

পাশের ফ্ল্যাটের বাসিন্দা ব্যবসায়ী নাছির উদ্দিন কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘ভবন দুটি পাশাপাশি হলে একটি থেকে অন্যটির বেসমেন্ট প্রায় ১৫ ফুট নিচে। উপর থেকে পড়ে তাঁর মাথায় গুরুতর জখম হয়। পড়ে যাওয়ার পরপরই তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেওয়া হয়। কিন্তু কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে বাসায় এনে জানাজা নামাজের পর তাঁর মরদেহ গ্রামের বাড়ি লোহাগাড়ার পদুয়ায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়।’


মন্তব্য