kalerkantho


প্রণব মুখোপাধ্যায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আসছেন কাল

মোবারক আজাদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



প্রণব মুখোপাধ্যায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আসছেন কাল

ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) আসছেন আগামীকাল মঙ্গলবার। এদিন বিশেষ সমাবর্তনে তাঁকে সম্মানসূচক ডি.লিট উপাধিতে ভূষিত করা হবে।

এদিকে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের আগমন উপলক্ষে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা জানান, সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে মাঠে সরব আছেন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা। ইতোমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যামপাসে বাড়ানো হয়েছে গোয়েন্দা তত্পরতা। মঙ্গলবার ক্যামপাসের নিরাপত্তায় বিপুলসংখ্যক প্রেসিডেন্ট গার্ড রেজিমেন্ট (পিজিআর) সদস্য, ৪০০ পুলিশ ও র‌্যাবের সদস্য থাকবেন। ভিভিআইপি নিরাপত্তার বিষয়টি দেখছে সেপশাল সিকিউরিটি ফোর্স (এসএসএফ)।

বিশ্ববিদ্যালয় ক্যামপাসে অবস্থানকালে শিক্ষার্থীদের পরিচয়পত্র বহনের নির্দেশনা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। অন্যথায় কোনো শিক্ষার্থীকে সন্দেহ হলে আটক করা হবে। অনুষ্ঠানের দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল বিভাগের ক্লাসও স্থগিত করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. কামরুল হুদা কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘ক্লাস স্থগিত করা হলেও পরীক্ষার বিষয়ে আমাদের কোনো দিক নির্দেশনা নেই। এ বিষয়ে স্ব স্ব বিভাগ ও ইনস্টিটিউটগুলো সিদ্ধান্ত নেবে। সকল শিক্ষক ওই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত। তাই তাঁরা হয়তো ওইদিন পরীক্ষা নাও নিতে পারেন।’

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, শহীদ আব্দুর রব হলের মাঠে আয়োজিত বিশেষ সমাবর্তনে প্রণব মুখোপাধ্যায় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বক্তব্য দেবেন। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে তাঁকে সম্মানসূচক ডি.লিট ডিগ্রি প্রদান করা হবে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টারদা সূর্য সেন ও প্রীতিলতা হল পরিদর্শন এবং বাংলা বিভাগে মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে তাঁর।

গোয়েন্দা সূত্র জানায়, আগামীকাল মঙ্গলবার সকালে প্রণব মুখোপাধ্যায় চট্টগ্রাম এসে শহরের হোটেল রেডিসন ব্লুতে অবস্থান করবেন। পরে সড়কপথে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে যাবেন। দুপুর ১২টা থেকে বেলা আড়াইটা পর্যন্ত সেখানে থাকবেন। এ সময় হোটেল রেডিসন ব্লু থেকে নগরীর অক্সিজেন সড়ক হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক নম্বর গেট পর্যন্ত ৪১ পয়েন্টে পুলিশ মোতায়েন করবে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) ও জেলা পুলিশ। এছাড়া সাদা পোশাকধারী পুলিশ, র‌্যাব ও এসএসএফসহ গোয়েন্দারা দায়িত্ব পালন করবেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরী বলেন, ‘স্বাভাবিকভাবে এই ধরনের বড় অনুষ্ঠানের এক সপ্তাহ আগে থেকেই বিশেষ নিরাপত্তা জোরদার করা হয়। সার্বিক নিরাপত্তায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা নিয়োজিত রয়েছেন।’


মন্তব্য