kalerkantho


যুবলীগ নেতার চাঁদাবাজির প্রতিবাদ

চকরিয়া-পেকুয়ার পাঁচ সড়কে কাল সকাল-সন্ধ্যা পরিবহন ধর্মঘট

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



চকরিয়া-পেকুয়ার পাঁচ সড়কে কাল সকাল-সন্ধ্যা পরিবহন ধর্মঘট

পেকুয়ায় পরিবহন শ্রমিকদের বিক্ষোভ। ছবি : কালের কণ্ঠ

কতিপয় শ্রমিক সংগঠনের নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজি, নিরীহ শ্রমিকদের ওপর হামলা ও লুটপাট বন্ধের দাবিতে চকরিয়া-পেকুয়া-মগনামা ও টৈটং সড়কসহ দুই উপজেলার অভ্যন্তরীণ পাঁচ সড়কে আগামীকাল বুধবার সকাল-সন্ধ্যা পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে পরিবহন মালিক ও শ্রমিক ইউনিয়ন।

রবিবার রাতে চকরিয়ার বানিয়ারছড়ায় সমিতির কার্যালয়ে পরিবহন মালিক ও শ্রমিক ইউনিয়নের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করে পরিবহন ধর্মঘটের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। কর্মসূচি সফল করতে সোমবার পেকুয়ায় পরিবহন ও মালিক-শ্রমিকরা বিক্ষোভ মিছিল এবং সমাবেশ করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন চকরিয়া-পেকুয়া-মগনামা ও পেকুয়া-টৈটং, পেকুয়া-বাঘগুজারা, পেকুয়া-উজানটিয়া ও পেকুয়া-রাজাখালী সড়ক যানবাহন মালিক সমিতির (রেজি. ২১৬৯) সভাপতি মো. নুরুল আবচার। বক্তব্য দেন আরাকান সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন (রেজি. বি-৭২৬) কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক শ্রমিক নেতা কামাল আজাদ, পেকুয়া সিএনজি অটোরিকশা-টেম্পু সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ বারেক, শ্রমিকনেতা আবুল কালাম, চকরিয়া-পেকুয়া-মগনামা রোড শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. বেলাল উদ্দিন, যানবাহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইউনুছ, শ্রমিক ইউনিয়নের সম্পাদক মো. আবু মুছা, যানবাহন মালিক সমিতির সহ সভাপতি ওয়াহিদুল ইসলাম, সহ-সাধারণ সম্পাদক জহির মিয়া, লাইন সম্পাদক নেজাম উদ্দিন, সদস্য মো. জকরিয়া, শ্রমিক ইউনিয়নের কোষাধ্যক্ষ আবদুল হামিদ, শ্রমিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ইসমাইল, চকরিয়া-পেকুয়া রোড সিএনজি অটোরিকশা টেম্পু সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি নাছির উদ্দিন, কার্যকরী সভাপতি জামাল হোসেন, সহ-সভাপতি খালেদ নেওয়াজ, সহ সভাপতি মহিউদ্দিন বাবুল, যুগ্ম সম্পাদক অলি উল্লাহ, দপ্তর সম্পাদক মো. শামীম, অর্থ সম্পাদক ফিরোজ আহমদ, প্রচার সম্পাদক জয়নাল আবেদীন প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে শ্রমিক নেতা কামাল আজাদ বলেন, ‘গত কয়েকদিন ধরে পেকুয়া চৌমুহনীতে সিএনজি শ্রমিক ইউনিয়নের লাইনম্যান নুরুন্নবীর ওপর হামলা চালিয়েছে জাহাঙ্গীরসহ বহিরাগত চাঁদাবাজরা। এ সময় সমিতির রসিদ বইও কেড়ে নেয় তারা। এর পর থেকে চক্রটি সংগঠনের নাম ব্যবহার করে রসিদ ছাপিয়ে অটোরিকশা চালকদের কাছ থেকে জোরপূর্বক চাঁদা আদায় করছে।’ 

অবশ্য অভিযোগ সত্য নয় বলে দাবি করেছেন অভিযুক্তদের একজন পেকুয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম। তিনি দাবি করেন, রাজনীতিতে প্রতিপক্ষরাই তাঁর বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ উত্থাপন করছেন। যেখান তাঁর কোনো সম্পৃক্ততা নেই।

 

 


মন্তব্য