kalerkantho


সিলেটে আন্ডারগ্রাউন্ড বিদ্যুৎ লাইন স্থাপনে ৫০০ কোটি টাকার প্রকল্প

সিলেট অফিস   

১৩ জুন, ২০১৮ ০০:০০



সিলেটে আন্ডারগ্রাউন্ড বিদ্যুৎ লাইন স্থাপনে ৫০০ কোটি টাকার প্রকল্প

সিলেট নগরে আর থাকবে না তারের জঞ্জাল। রাস্তার পাশে বৈদ্যুতিক খুঁটিও আর দেখা যাবে না। এমনটাই জানিয়েছে সিলেট সিটি করপোরেশনের প্রকৌশল বিভাগ। নগরের প্রধান প্রধান সড়কে আন্ডারগ্রাউন্ড বিদ্যুৎ লাইন স্থাপনের একটি মেগা প্রকল্প হাতে নিয়েছে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড। প্রায় ৫০০ কোটি টাকার এ প্রকল্পের কাজ আগামী মাসেই শুরু হবে। এরই মধ্যে প্রকল্পের টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে।

সিলেট সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা গেছে, প্রকল্পের প্রাথমিক পর্যায়ে সিলেট সার্কিট হাউস থেকে আম্বরখানা, চৌহাট্টা থেকে পিডিবি মসজিদ, চৌহাট্টা থেকে কুমারপাড়া হয়ে নাইওরপুল, কুমারপাড়া পয়েন্ট থেকে শাহি ঈদগাহ আবহাওয়া অফিস পর্যন্ত রাস্তার উভয় পাশে আন্ডারগ্রাউন্ড কেবল স্থাপিত হবে। নগর সংস্থার প্রকৌশল শাখা জানায়, এ প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন হলে বৈদ্যুতিক খুঁটিগুলো সরিয়ে নেওয়া হবে। ফলে নগরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রশস্ত করার কার্যক্রম আরো ত্বরান্বিত হবে।

সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ‘আমার অনেক দিনের স্বপ্ন এখন বাস্তবায়ন হতে চলেছে। নগরের স্থানে স্থানে বিদ্যুতের খুঁটিতে ঝুঁকিপূর্ণ তারের জঞ্জাল সরানো ও নিরাপদ বিদ্যুতায়নের লক্ষ্যে দায়িত্ব গ্রহণের পরপরই আমি এ উদ্যোগ নিয়েছিলাম। প্রাথমিক পর্যায়ে চৌহাট্টা থেকে বন্দর পয়েন্ট পর্যন্ত আন্ডারগ্রাউন্ড বিদ্যুৎ লাইন স্থাপনের কার্যক্রমও শুরু হয়েছিল। কিন্তু ওই সময় মিথ্যা মামলায় আমাকে জড়িয়ে প্রায় আড়াই বছর বন্দি রাখা হয়। কারাগারে থাকা অবস্থায় আমার অনুপস্থিতিতে পিডিবি ওই প্রকল্প বাতিল করে দেয়। কারাগার থেকে বের হওয়ার পর প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য নতুন উদ্যমে কাজ শুরু করি। আমার পরিশ্রম সফল হয়েছে। ঈদের পরপরই এ প্রকল্পের কাজ পুরোদমে শুরু হবে।’

সিটি করপোরেশনের ৭৪৮ কোটি টাকার বাজেট

সিলেট সিটি করপোরেশনের ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য ৭৪৮ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে নগরের একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে এ বাজেট ঘোষণা করেন। নতুন কোনো করারোপ ছাড়াই এবার ৭৪৮ কোটি ৬৪ লাখ ৪০ হাজার টাকা আয় ও সমপরিমাণ ব্যয় ধরে বাজেট ঘোষণা করা হয়।


মন্তব্য