kalerkantho


রিয়ালের গোলবন্যা, সেভিয়ার দুর্দান্ত ফেরা

২৩ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



রিয়ালের গোলবন্যা, সেভিয়ার দুর্দান্ত ফেরা

কোচের জন্য : সেভিয়ার এই উদ্যাপনে আনন্দ-বেদনা মেশানো। খেলোয়াড়রা ম্যাচের বিরতির সময়ই যে জানতে পারেন কোচ এদুয়ার্দো বেরিজ্জো ক্যান্সারে আক্রান্ত। ০-৩ পিছিয়ে থেকে এর পরই অবিশ্বাস্য প্রত্যাবর্তনে লিভারপুলের সঙ্গে ৩-৩ এ ম্যাচ ড্র। সমতা ফেরানো গোলের পর তাঁরা তো কোচের কাছেই ছুটে যাবেন।

পরশু চ্যাম্পিয়নস লিগের দুটি ম্যাচে ৬ গোল করে হয়েছে। দুই ম্যাচের মাহাত্ম্য দুই রকম।

রিয়াল মাদ্রিদ অ্যাপোয়েলকে তাদের মাঠে গোলবন্যায় ভাসিয়েছে, ম্যাচের ৬টি গোলই লস ব্লাংকোদের। আগের ম্যাচে টটেনহামের কাছে হার, তার ওপর লা লিগায় ১০ পয়েন্ট পিছিয়ে থাকার পর এমন গোলোৎসব ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোদের যে ভীষণ প্রয়োজনও ছিল। এই জয়ে শেষ ষোলোও নিশ্চিত হয়ে গেছে তাদের।

র‌্যামন সানচেজ পিজুয়ানের ৬ গোল আবার প্রত্যাবর্তনের আলোয় ভাস্বর। লিভারপুলের বিপক্ষে ৩ গোলে পিছিয়ে পড়ে যে সেই ম্যাচ ৩-৩ গোলে ড্র করেছে সেভিয়া। বিরতির আগেই স্কোরলাইন ৩-০ করে ফেলেছিল অলরেডরা। বিরতির পর স্বাগতিকদের প্রত্যাবর্তনের গল্পটা যে যুগপৎ বিষাদ আর ভালোবাসায় মাখা। আর্জেন্টাইন কোচ এদুয়ার্দো বেরিজ্জো শরীরের ভেতর ক্যান্সারের মতো এক দুরারোগ্য ব্যাধি বয়ে নিয়ে চলছেন কে জানত! খেলোয়াড়রাও জানতেন না। ৩-০ তে পিছিয়ে পড়ে দল যখন ড্রেসিংরুমে ফেরে তখনই বেরিজ্জো খবরটা দেন শিষ্যদের।

এটা এমন এক আঘাত হয়ে এসেছিল যে, খেলোয়াড়রা ভেঙে পড়ার বদলে পাথরের মতো শক্ত আর বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন। তাতেই অলরেডদের দাপট চূর্ণ। নাম্বার নাইন উইসান বেন এদ্দের করেন জোড়া গোল, সমতা ফেরানো শেষ গোলটি অতিরিক্ত সময়ে। অথচ রবার্তো ফিরমিনোর জোড়া গোল আর সাদিও মানের লক্ষ্যভেদে লিভারপুল দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরুর আগে চ্যাম্পিয়নস লিগের নকআউট পর্বে উঠে গিয়েছিল প্রায়। ২০০৮-০৯-এ সর্বশেষ খেলেছে তারা ইউরোপীয় আসরের শেষ ষোলোতে। সাত বছর পর সেই মর্যাদার অবস্থানে তাদের ফেরা চূড়ান্তই ছিল যদি জয়টা নিয়ে ফিরতে পারত ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। কিন্তু চিত্রনাট্য যে অন্যভাবে লেখা ছিল। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে বেরিজ্জো এ নিয়ে কোনো কথাই বলেননি। কিন্তু বিভিন্ন মাধ্যমে খবরটা ছড়াতে সময় নেয়নি। শেষ পর্যন্ত ক্লাব থেকেই বিবৃতি দিয়ে এমন দুঃসংবাদটা নিশ্চিত করা হলো, ‘আমাদের মেডিক্যাল টিম জানিয়েছে আমাদের মূল কোচ এদুয়ার্দো বারিজ্জো প্রোস্টেট ক্যান্সারে আক্রান্ত। আরো কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে কিভাবে তাঁর চিকিৎসা হবে। ’ এর আগে বার্সেলোনার দায়িত্বে থাকাকালে তিতো ভিলানোভা ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন, ছুটি নিয়ে চিকিৎসা শেষে ফিরেও খুব বেশি দিন আর এই পৃথিবীর আলোয় থাকা হয়নি তাঁর। তবে বেরিজ্জো দ্রুতই সুস্থ হয়ে ফিরবেন এমনটাই আশা ক্লাব কর্তৃপক্ষের। সেভিয়ার সাবেক স্পোর্টিং ডিরেক্টর মঞ্চিও টুইটারে লিখেছেন, ‘শক্ত থাকুন গুরু, হাল ছাড়বেন না। ’ সেভিয়ার পরের ম্যাচ মারিবোরের মাঠে, সেই ম্যাচ জিতলে শেষ ষোলো নিশ্চিত করবে তারাও।

অ্যাপোয়েলের মাঠে অনেক সমালোচনা মাথায় নিয়ে নেমেছিলেন রিয়ালের খেলোয়াড়রা। পুরো মৌসুমে মোটে ২ গোল করায় সমালোচনাটা বেশিই ছিল করিম বেনজেমাকে ঘিরে। ফরাসি স্ট্রাইকার এই এক ম্যাচেই দুই গোল করে তার জবাব দিয়েছেন ভালোভাবেই। জোড়া গোল ক্রিস্তিয়ানোর রোনালদোরও। দারুণ এক ভলিতে গোলোৎসবের শুরুটা করেছিলেন লুকা মডরিচ। দ্বিতীয় গোলটি টনি ক্রুসের পাস থেকে। ৩৯ মিনিটে সেই গোল থেকেই দ্বিতীয়ার্ধসহ পরের ১৫ মিনিটেই ৫ গোল করে রিয়াল। বেনজেমার পর নাচো করেন ৩-০। বিরতির আগেই বেনজেমা ৪-০ করেন রোনালদোর পাস থেকে। বিরতির পর হেডে প্রথমটি এবং অ্যাপোয়েলের ডিফেন্সের ভুলের সুযোগ নিয়ে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন রোনালদো। রিয়ালের এই জয়েই বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের শেষ ষোলোর আশা শেষ হয়ে যায়, নিজেদের মাঠে তারা অবশ্য ২-১ গোলে হেরেই গেছে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে শেষ ষোলো নিশ্চিত করা টটেনহামের কাছে। ফেইনুর্দকে ১-০ গোলে হারিয়ে গ্রুপ সেরা হয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। শাখতার দোনেৎসকে ৩-০ গোলে হারিয়ে আশা বাঁচিয়ে রেখেছে নাপোলি। ওদিকে তুর্কি চ্যাম্পিয়ন বেসিকতাস ৩১ বছর পর নকআউট পর্ব নিশ্চিত করেছে পোর্তোর সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে। ফ্রেঞ্চ চ্যাম্পিয়ন ও গতবারের সেমিফাইনালিস্ট মোনাকোর সে আশা শেষ আরবি লিপজিগের কাছে ৪-১ গোলে হেরে। এএফপি


মন্তব্য