kalerkantho


নিষিদ্ধ শাহজাদ

৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



ডোপ টেস্টে পজিটিভ প্রমাণিত হওয়ায় ১২ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে আফগান ক্রিকেটার মোহাম্মদ শাহজাদকে। আইসিসির প্রতিযোগিতার বাইরে ক্রিকেটারদের নিয়মিত পর্যবেক্ষণ কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ বছরের ১৭ জানুয়ারি মূত্র নমুনা দিয়েছিলেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।

সেই নমুনা যথাযথ পরীক্ষা শেষে তাতে ক্লেনবিউটেরল নামের একটি নিষিদ্ধ রাসায়নিকের উপস্থিতি পেয়েছে আন্তর্জাতিক অ্যান্টি ডোপিং সংস্থা ওয়াডা। শ্বাসকষ্টের রোগীদের চিকিৎসায় ওষুধে ব্যবহৃত এই রাসায়নিক যৌগ ওজন হ্রাসের ওষুধ হিসেবেও ব্যবহৃত হয়। ভারী গড়নের শাহজাদ ওজন হ্রাসের জন্যই এই ওষুধ নিতেন। শাহজাদ স্বীকার করেছেন কৃতকর্ম, শাস্তি হিসেবে তাঁকে ১২ মাসের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি।   হাইড্রোক্সিকাট নামের একটি ওজন হ্রাসের ওষুধ খেতেন শাহজাদ, সেই ওষুধেই মেশানো ছিল ওয়াডার নিষিদ্ধ তালিকার এই রাসায়নিক। শাহজাদ জানিয়েছেন, তিনি নিষিদ্ধ রাসায়নিকের ব্যাপারে জানতেন না। তবে মেনে নিয়েছেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার হিসেবে তাঁর আরো দায়িত্বশীল হওয়া উচিত ছিল। এই ঘটনায় আইসিসির মহাব্যবস্থাপক জিওফ অ্যালারডাইস ক্রিকেটারদের সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, ‘একজন ক্রিকেটার কী খাচ্ছে, পান করছে, শরীরে নিচ্ছে, সে ব্যাপারে তাদের সতর্ক হওয়া উচিত, কারণ ডোপ পরীক্ষায় তাদের নমুনায় নিষিদ্ধ কিছু পাওয়া গেলে সেই দায়-দায়িত্ব তার নিজের। ’ আইসিসি


মন্তব্য