kalerkantho


মুখোমুখি প্রতিদিন

ওদের পারফরম্যান্স অবশ্যই অন্যদের থেকে অসাধারণ হতে হবে

ওয়ানডে দলে যাঁরা ফিরলেন আর যাঁরা বাদ পড়লেন, সব সিদ্ধান্তেরই যৌক্তিকতা কাল দল ঘোষণার সংবাদ সম্মেলনে ব্যাখ্যা করলেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন। তারই সারসংক্ষেপ এখানে—

৮ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ওদের পারফরম্যান্স অবশ্যই অন্যদের থেকে অসাধারণ হতে হবে

প্রশ্ন : দীর্ঘদিন পর আপনারা নিজেদের ইচ্ছামতো দল নির্বাচন করতে পারলেন। অনুভূতি কেমন?

 

মিনহাজুল আবেদীন : আসলে আমরা টিমওয়ার্কের মাধ্যমে দলটি গঠন করেছি। এই সিরিজের আগ পর্যন্ত হেড কোচ (চন্দিকা হাতুরাসিংহে) আমাদের নির্বাচক প্যানেলে অন্তর্ভুক্ত ছিলেন। সুজন (খালেদ মাহমুদ) এখনো আছে। দল করার সময় অধিনায়ক ও সহ-অধিনায়কের মতামতকেও প্রাধান্য দিয়েছি।

প্রশ্ন : সৌম্য সরকারের বাদ পড়াটা প্রত্যাশিতই ছিল। তবু তাঁকে ঘিরে আপনাদের বর্তমান চিন্তাটা কী?

মিনহাজুল : সব ফরম্যাটেই বেশ কিছুদিন ধরে খেলছিল ও। ওর প্রতিভা নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই। কিন্তু ওর ধারাবাহিকতার অভাব। মানসিকভাবে নিজেকে ফিরে পাওয়ার জন্য ওকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে ব্রেক দেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করেছি আমরা। আশা করি, খুব দ্রুতই সে নিজেকে ফিরে পাবে।

প্রশ্ন : তাসকিন আহমেদকে নিয়ে কী বলবেন?

মিনহাজুল : ওরও একই অবস্থা। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে প্রত্যাশিত ফর্মে ছিল না। ওর ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলার প্রয়োজন আছে। বিশেষ করে বড় দৈর্ঘ্যের ম্যাচে। সে কারণে ওকেও ব্রেক দেওয়া হয়েছে।

প্রশ্ন : এনামুল হক ও মোহাম্মদ মিঠুনের অন্তর্ভুক্তির ব্যাখ্যা?

মিনহাজুল : এনামুলের কথা বলতে পারি, ও যথেষ্ট ভালো খেলেই সুযোগ করে নিয়েছে। দুই বছর ধরেই পারফরম করছে। আশা করি, সে এখানে ভালো করতে পারবে। মিঠুনও ঘরোয়া ক্রিকেটে খুব ভালো খেলেছে এবার। টিম ম্যানেজমেন্ট ওর ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী। আমাদের ধারণা সুযোগ পেলে সেও দেশের জন্য ভালো খেলবে।

প্রশ্ন : এনামুল আর মিঠুনকে নিয়ে দলে তিনজন উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান। উইকেটকিপিং নিয়ে বিশেষ কোনো পরিকল্পনা?

মিনহাজুল : মুশফিকুর রহিমই প্রথম পছন্দ। এনামুল ও মিঠুনের বাইরে ফিল্ডিং করারও দক্ষতা আছে। বিপিএলে এনামুল বেশির ভাগ ম্যাচেই বাইরে ফিল্ডিং করেছে। সব মিলিয়ে ওরা আত্মবিশ্বাসী। আর দরকার হলে তো এনামুল-মিঠুন আছেই। ওরাও কিপিং করতে পারবে।

প্রশ্ন : নাজমুল ইসলাম (অপু) আপনাদের বিবেচনায় ছিলেন। শেষ বিচারে সাঞ্জামুল ইসলামের এগিয়ে যাওয়ার কারণ কী?

মিনহাজুল : সাঞ্জামুল বেশ কিছুদিন ধরেই আমাদের সিস্টেমের মধ্যে ছিল। এইচপিতে ছিল, কোচের অধীনে ছিল। সে অনেক উন্নতি করেছে। সেই হিসাবে অপু কিন্তু কোথাও ছিল না। ওর এখনো যথেষ্ট সময় আছে। এ কারণেই সাঞ্জামুলকে এগিয়ে রেখেছি। বিপিএলে ভালো খেলায় অপুকে রেখেছি, সামনে তো ওর সময় আছেই।

প্রশ্ন : ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরে যাওয়া সৌম্য ও লিটনের প্রতি কী বার্তা থাকবে আপনাদের?

মিনহাজুল : ঘরোয়া ক্রিকেট ওরা অনেক দিন পর খেলতে যাচ্ছে। ওদের পারফরম্যান্স অবশ্যই অন্যদের থেকে অসাধারণ হতে হবে।


মন্তব্য