kalerkantho


তামিমকে আটকাতে...

১৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



তামিমকে আটকাতে...

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ১৯৯২ বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের অফ স্পিনার দীপক প্যাটেলের নতুন বলে বোলিং ছিল বড় চমক। চকচকে নতুন বল পেসারদের ‘সম্পত্তি’ হিসেবেই যে স্বীকৃত ছিল তত দিন। কিন্তু হালফিলে স্পিনে বোলিং আক্রমণ শুরু হচ্ছে আকছার। এই যেমন সর্বশেষ ম্যাচেই বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা বোলিং উদ্বোধন করেন দুই স্পিনারে—সাকিব আল হাসান ও সানজামুল ইসলাম।

আজ বাংলাদেশের বিপক্ষে যদি শ্রীলঙ্কার অফ স্পিনার আকিলা ধনঞ্জয় ইনিংস শুরু করেন, অবাক হওয়ার তাই কিছু নেই। প্রথমত বাংলাদেশের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল বলে। দ্বিতীয়ত শ্রীলঙ্কার কোচ চন্দিকা হাতুরাসিংহে হওয়ায়।

তামিম বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। আর এই প্রজাতির ব্যাটসম্যান সচরাচর খানিকটা দুর্বল হন অফ স্পিনের বিপক্ষে। হাতুরাসিংহে তা জানেন ভালোভাবে। অবশ্য এই জানার জন্য বাংলাদেশের সাবেক কোচ হওয়ার প্রয়োজন নেই। তামিমকে ঠেকানোর কৌশল হিসেবে ধনঞ্জয়কে দিয়ে বোলিং শুরু করানোটা তাই অমন কোনো ‘রকেট সায়েন্স’ না। আর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আগের ম্যাচেও তো এই অফ স্পিনারকে দিয়ে বোলিং উদ্বোধন করিয়েছে শ্রীলঙ্কা। দুই ওপেনার হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও সলোমন মির অবশ্য চড়ে বসতে দেননি। প্রথম চার ওভারে ৩১ রান নিয়ে তাঁকে সরিয়ে দেন আক্রমণ থেকে। পুরো ম্যাচেও সুবিধা করতে পারেননি ধনঞ্জয়। ১০ ওভারে ৬৭ রান দিয়ে ছিলেন উইকেটশূন্য।

তবু আজ হয়তো এই অফ স্পিনারকে নিয়ে জুয়াটা খেলবেন হাতুরাসিংহে। এ ছাড়া উপায় নেই যে! তামিম যদি উইকেটে থিতু হয়ে যান, তাহলে তো কাজটি বড্ড কঠিন হয়ে যাবে লঙ্কানদের জন্য। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচেই সেটি দেখিয়েছেন। আটটি চার ও এক ছক্কায় ৯৩ বলে ৮৪ রান করে অপরাজিত ছিলেন তামিম। সেঞ্চুরি যে পাননি, তা জিম্বাবুয়ে যথেষ্ট রান করতে পারেনি বলেই!

তামিম অবশ্য রান করছেন যথেষ্ট। কোনো সন্দেহ ছাড়াই ক্যারিয়ারের সবচেয়ে ভালো সময়টা কাটাচ্ছেন গত তিন বছর ধরে। ২০০৭ সালে অভিষেকের পর প্রথম আট বছরে ১৩৫ ওয়ানডেতে তাঁর ৩৯৭১ রান। গড় ২৯.৮৩। সেঞ্চুরি চারটি এবং হাফ সেঞ্চুরি ২৭টি। সেখানে ২০১৫ সাল থেকে খেলা ৪০ ওয়ানতেই ১৮৭৯ রান করে ফেলেন এই বাঁহাতি। ৫৩.৬৮ গড়ে। ১২ ফিফটির পাশাপাশি পাঁচ সেঞ্চুরিতে। এ সময়ে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান তামিমের। পুরো বিশ্বের ব্যাটসম্যানদের হিসাবে নিলে ১৫ নম্বরে; পরিধি কমিয়ে শুধু ওপেনারে নিয়ে এলে সাত নম্বরে।

এই তামিমকে থামানোর জন্য হাতুরাসিংহে তো অফ স্পিনার ধনঞ্জয়কে দিয়ে ফাটকা খেলতেই পারেন।


মন্তব্য