kalerkantho


নিউজিল্যান্ড ৫ পাকিস্তান ০

২০ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



নিউজিল্যান্ড ৫ পাকিস্তান ০

ব্যর্থতার বৃত্তেই পাকিস্তান। টানা ৯ ওয়ানডে জিতে নিউজিল্যান্ডে এসে রীতিমতো বিধ্বস্ত চ্যাম্পিয়নস ট্রফিজয়ীরা। পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ হেরে গিয়েছিল আগেই। গতকাল শেষ ওয়ানডেতে ১৫ রানে হেরে হোয়াইটওয়াশ ০-৫ ব্যবধানে। ওয়েলিংটনে নিউজিল্যান্ডের ৭ উইকেটে ২৭১ রানের জবাবে এক ওভার বাকি থাকতে ২৫৬-তে অল আউট সফরকারীরা। ক্যারিয়ারের ১৩তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি করা মার্টিন গাপটিল ম্যাচসেরার পাশাপাশি জেতেন সিরিজ সেরার পুরস্কারও।

নিউজিল্যান্ড পাঁচ ম্যাচের সিরিজে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার হোয়াইটওয়াশ করল প্রতিপক্ষকে। ২০০০ সালে প্রথমবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে কিউইরা জিতেছিল ৫-০ ব্যবধানে। সব ফরম্যাট মিলিয়ে এ নিয়ে টানা ১২ ম্যাচে জয় পেল তারা। আর দেশের মাটিতে অপরাজিত গত বছরের মার্চের পর থেকে। তৃতীয় ওয়ানডে জয়ের পর পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করার হুমকি দেওয়া কেন উইলিয়ামসন খুশি দলের এমন সাফল্যে, ‘দেশের মাটিতে খুব ভালো খেলছি আমরা। পাকিস্তানের মতো দলের বিপক্ষে টানা পাঁচ ম্যাচ জেতার কৃতিত্ব দলের সবার।’

পাঁচ ম্যাচের সিরিজে পাকিস্তান এ নিয়ে হোয়াইটওয়াশ তিনবার। এর আগে ১৯৮৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ আর ২০১০ সালে ধবলধোলাই হয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। তা ছাড়া গত তিন বছরে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ৯ ওয়ানডের আটটি হেরেছে পাকিস্তান। হারতে না হওয়া অন্য ম্যাচটি পরিত্যক্ত বৃষ্টিতে। এবার নিউজিল্যান্ডে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার দায়টা সরফরাজ আহমেদ দিচ্ছেন ব্যাটসম্যানদের কাঁধে, ‘আমাদের বোলাররা দারুণ করেছে। ব্যাটসম্যানরা রান না পাওয়াতেই জিততে পারিনি কোনো ম্যাচে। সিরিজজুড়ে অনেক সুযোগ পেয়েছিলাম। সেগুলো কাজে লাগাতে পারিনি।’

গতকালও ৭২ রানে থাকার সময় পা পিছলে পড়েছিলেন মার্টিন গাপটিল। কিন্তু স্টাম্পিং মিস করেন ফাহিম আশরাফ। জীবন পেয়ে ১৩তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি করেন এই ওপেনার। ১২৬ বলে ১০ বাউন্ডারি ১ ছক্কায় ঠিক ১০০ রানেই ফেরেন রুম্মন রাইসের বলে মোহাম্মদ হাফিজকে ক্যাচ দিয়ে। রস টেলর করেছিলেন ৭৩ বলে ৫৯। জবাবে হারিস সোহেলের ৮৭ বলে ৬৩ ও শাদাব খানের ৭৭ বলে ৫৪ ছাড়া কেউ তেমন কিছু করতে পারেনি পাকিস্তানের। ম্যাট হেনরি নিয়েছিলেন ৫৩ রানে ৪ উইকেট। ক্রিকইনফো

 

সংক্ষিপ্ত স্কোর

নিউজিল্যান্ড : ৫০ ওভারে ২৭১/৭ (গাপটিল ১০০, টেলর ৫৯, মুনরো ৩৪; রাইস ৩/৬৭, আশরাফ ২/৪৯)।

পাকিস্তান : ৪৯ ওভারে ২৫৬ সোহেল ৬৩, শাদাব ৫৪, ইয়ামিন ৩২*; হেনরি ৪/৫৩, স্যান্টনার ৩/৪০)।

ফল : নিউজিল্যান্ড ১৫ রানে জয়ী।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ ও  সিরিজ : মার্টিন গাপটিল।

সিরিজ : নিউজিল্যান্ড ৫-০ ব্যবধানে জয়ী।


মন্তব্য