kalerkantho


সুপার লিগে শেখ জামাল

এই প্রথম ছিটকে গেল মোহামেডান

২১ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



এই প্রথম ছিটকে গেল মোহামেডান

ক্রীড়া প্রতিবেদক : বোলার হলেও তাইজুল ইসলামের ব্যাটিং সামর্থ্য বাংলাদেশকে টেস্ট পর্যন্ত জিতিয়েছে। এবার আরেক বোলার কাজী অনীককে সঙ্গে নিয়ে মোহামেডানকেও জেতালেন এ বাঁহাতি স্পিনার। তাতে কলাবাগান ক্রীড়া চক্রের হয়ে চলতি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে মোহাম্মদ আশরাফুলের তৃতীয় সেঞ্চুরি বিফলে গেলেও শেষ পর্যন্ত এ জয়ে লাভ হলো না মোহামেডানেরও। বিকেএসপিতে ২ উইকেটে জিতলেও লিগের সেরা ছয় দলের সুপার লিগে উঠতে ব্যর্থ হয়েছে তারা।

দলটির অনেক পুরনো কর্মকর্তা ওয়াসিম খানের স্মৃতিতে ভরসা রাখলে মোহামেডানের সুপার লিগে যেতে না পারার ঘটনা এই প্রথম, ‘এর আগে আবাহনীর দুইবার সুপার লিগে উঠতে না পারার ঘটনা আছে। তবে মোহামেডানের ক্ষেত্রে এবারই প্রথম। খুবই দুঃখজনক।’ কয়েক বছর ধরেই বেশ নড়বড়ে দল গড়া মোহামেডানের সুপার লিগে যাওয়ার সম্ভাবনা কাল শেষ হয়ে যায় ফতুল্লায় ব্রাদার্স ইউনিয়নের বিপক্ষে বাঁহাতি স্পিনার ইলিয়াস সানীর অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে শেখ জামাল ধানমণ্ডির ৭৪ রানের জয়ে। আবাহনী, লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ, খেলাঘর সমাজকল্যাণ সমিতি, প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব এবং বর্তমান চ্যাম্পিয়ন গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের পর শেষ দল হিসেবে সুপার লিগ নিশ্চিত করল শেখ জামাল। লিগের প্রথম পর্বের শেষ দিনে জিতে শীর্ষ দল আবাহনীকে পয়েন্টের দিক থেকে ছুঁয়ে ফেলার সুযোগ থাকলেও অগ্রণী ব্যাংকের কাছে ৬ উইকেটে হেরে গেছে রূপগঞ্জ। জিতলেও পয়েন্ট টেবিলে ১০ নম্বরেই আছে অগ্রণী ব্যাংক। পয়েন্ট সমান ৮ হলেও রানরেটে এগিয়ে থাকায় তাদের ঠিক ওপরেই ব্রাদার্স ইউনিয়ন। আর ৪ পয়েন্ট নিয়ে সবার শেষে কলাবাগান। এই তিন দল রেলিগেশন লিগে একে-অন্যের বিপক্ষে একবার করে খেলবে। এদের মধ্যে শীর্ষ দল প্রিমিয়ার লিগে থেকে যাবে, আর শেষ দুই দল নেমে যাবে প্রথম বিভাগে।

শুরুতে উইকেট হারালেও আশরাফুলের সঙ্গে ৮৫ রানের পার্টনারশিপে কলাবাগানের বিপর্যয় সামলে নেন ওপেনার ওয়ালিউল করিম (৪৬)। তাঁর বিদায়ের পর দলকে একাই টেনেছেন ১১২ বলে সেঞ্চুরি করা আশরাফুল। ১২৪ বলে ১৩ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় খেলা তাঁর ১২৭ রানের ইনিংসে কলাবাগান ২৬০ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায়। আশরাফুলের সেঞ্চুরিতে ম্লান হয়ে যায় মোহামেডানের বাঁহাতি পেসার কাজী অনীকের ৪৯ রানে ৬ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব। যদিও দল ২৩৪ রানে অষ্টম উইকেট হারানোর পর অনীকই (১৫*) শেষ ওভারে টানা দুই ছক্কা মেরে নিশ্চিত করেছেন দলের জয়। তাঁকে নিয়ে হাল ধরা তাইজুল অপরাজিত ছিলেন ৩৪ রানে। আর সুপার লিগ নিশ্চিত করা শেখ জামাল অল্প পুঁজিতেই জয় তুলে নিয়েছে। ওপেনার সৈকত আলীর (৫৫) ফিফটি ছাড়া আর বলার মতো স্কোর তানভীর হায়দার (৩৩) ও ইলিয়াস সানীর (৩১)। পরে ১৮৪ রানের পুঁজিও যথেষ্ট মনে করানোর ক্ষেত্রে দারুণ ভূমিকা ইলিয়াসের। ২২ রান খরচায় নিয়েছেন ৩ উইকেট। শ্রীলঙ্কা থেকে ফিরে কালই মাঠে নেমে পড়া শেখ জামাল অধিনায়ক নুরুল হাসান করেছেন ১৬ রান। রূপগঞ্জের হয়ে মুশফিকুর রহিমও বেশি করতে পারেননি, আউট হয়েছেন ২১ রানে। তবে তুষার ইমরানের ৯৮ রানের ইনিংসে ২০৪ রান তোলে দলটি। শাহরিয়ার নাফীসের ৮২ রানের সঙ্গে শামসুল ইসলাম (৪১) ও ধীমান ঘোষের (৪৯*) দুটো চল্লিশোর্ধ্ব ইনিংসে অগ্রণী ব্যাংক অবনমন এড়ানোর সুযোগ বাড়িয়ে রাখল আরো।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

মোহামেডান-কলাবাগান ক্রীড়া চক্র

কলাবাগান ৪৭.৫ ওভারে ২৬০ (আশরাফুল ১২৭, ওয়ালিউল ৪৬, মাহমুদুল ৩৩; অনীক ৬/৪৯)।

মোহামেডান ৪৯.২ ওভারে ২৬৩/৮ (এনামুল ৫৭, রনি ৫১, শামসুর ৩৮, তাইজুল ৩৪*; সঞ্জিত ৩/৪৮)।

ফল : মোহামেডান ২ উইকেটে জয়ী।

শেখ জামাল ধানমণ্ডি-ব্রাদার্স ইউনিয়ন

শেখ জামাল ৪৭.১ ওভারে ১৮৪ (সৈকত ৫৫, তানভীর ৩৩, ইলিয়াস ৩১; খালেদ ৩/৪১)।

ব্রাদার্স ৩৯.২ ওভারে ১১০ (মাইশুকুর ২৭, দেবব্রত ২৭; ইলিয়াস ৩/২২, সোহাগ ৩/৩৬)।

ফল : শেখ জামাল ৭৪ রানে জয়ী।

লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ-অগ্রণী ব্যাংক

রূপগঞ্জ ৫০ ওভারে ২০৪/৯ (তুষার ৯৮, মোশাররফ ২৭, মুশফিক ২১; আল-আমিন ৪/৪৪)।

অগ্রণী ব্যাংক ৪৭.১ ওভারে ২১০/৪ (শাহরিয়ার ৮২, ধীমান ৪৯*, শামসুল ৪১, সৌম্য ২৪)।

ফল : অগ্রণী ব্যাংক ৬ উইকেটে জয়ী।



মন্তব্য