kalerkantho


পেছাতে পারে বিপিএল

১৬ মে, ২০১৮ ০০:০০



ক্রীড়া প্রতিবেদক : প্রতিবারই নভেম্বরে শুরু হয়ে ডিসেম্বরে শেষ হয় বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)। তবে এবার জাতীয় দলের ব্যস্ততার কারণে টুর্নামেন্টটি অক্টোবরে এগিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেয় বিসিবি। কিন্তু দিন-তারিখ ঠিক করেও বিসিবি এখন নির্ধারিত সময়ে বিপিএল শুরু করার বিষয়ে অনিশ্চিত।  জাতীয় নির্বাচনের আগে এমন একটি টুর্নামেন্টের দলগুলোর নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনার ধকল নিতে একদমই রাজি নয় বাংলাদেশ সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলো।

এমনই জানালেন বিসিবি পরিচালক ও বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্যসচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক। যদিও প্রথমে শোনা গিয়েছিল যে গত নভেম্বর-ডিসেম্বরে খেলার পর এত দ্রুততম সময়ের মধ্যে বিপিএল খেলতে রাজি নয় অনেক ফ্র্যাঞ্চাইজিই। মল্লিক সেই খবর উড়িয়ে দিতে গিয়েই টানলেন নিরাপত্তা ইস্যুতে বিপিএল পিছিয়ে যাওয়ার প্রসঙ্গ, ‘কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে এখনো বসাই হয়নি। তাদের সঙ্গে বসার আগে তো সরকারের কাছ থেকে ওই সময় বিপিএল আয়োজনের সবুজ সংকেত পেতে হবে। সেটি আমরা এখনো পাইনি।’ কেন পাওয়া যাচ্ছে না, সেই ব্যাখ্যা দিতে গিয়েই বিপিএল সদস্যসচিব নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার সঙ্গে যুক্ত বিভাগগুলোর অপারগতার কথা জানালেন, ‘ওই সময় কোনো দ্বিপক্ষীয় সিরিজ হলে হয়তো সরকার নিরাপত্তা দেবে। কিন্তু বিপিএল তো অনেক দলের টুর্নামেন্ট। এত দলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে গেলে বাড়তি ব্যবস্থাপনারও দরকার।’ সেই বাড়তি ব্যবস্থাপনায় সরকারি সংস্থাগুলোর অনাগ্রহের কারণও জানালেন মল্লিক, ‘সামনেই যেহেতু জাতীয় নির্বাচন, তাই সরকারি সংস্থাগুলো কিছুতেই ওই সময় (অক্টোবর-নভেম্বর) বিপিএল নিরাপত্তার ঝক্কি নিতে চাইছে না।’ তবে অক্টোবরেই বিপিএল আয়োজনের চেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন মল্লিক।


মন্তব্য

Saurav commented 11 days ago
এটা খুবই হতাশাজনক একটি খবর, ক্রিকেট এবং বিপিএলের ব্রান্ডি‍‍ংয়ের সা‍র্থে অবশ্যই বিপিএল যথা সময়ে হওয়া উচিত,