kalerkantho


‘চ্যাম্পিয়ন’ মেক্সিকোর সামনে মরিয়া কোরিয়া

২৩ জুন, ২০১৮ ০০:০০



‘চ্যাম্পিয়ন’ মেক্সিকোর সামনে মরিয়া কোরিয়া

বিশ্বকাপে মেক্সিকোর সর্বোচ্চ সাফল্য কোয়ার্টার ফাইনাল। যে দলটি গত ছয় বিশ্বকাপে টানা শেষ ষোলো নিশ্চিত করেছে তাদের জন্য এই সাফল্য পীড়াদায়কও। এবার টুর্নামেন্ট শুরুর আগে হাভিয়ের এর্নান্দেসকে যখন প্রশ্ন করা হলো—লক্ষ্য কী? ‘চিচারিতো’ সরাসরি জবাব দিলেন, ‘ট্রফি জিততে চাই।’ প্রশ্নকর্তা কোয়ার্টার ফাইনালের সাফল্য স্মরণ করিয়ে দিয়ে আবার জানতে চাইলেন। চিচারিতোর একই উত্তর, সঙ্গে ব্যাখ্যাও জুড়ে দিলেন, ‘গত ২০ আসরের ১৫টিতেই খেলেছি আমরা। দুইবার খেলেছি কোয়ার্টার ফাইনাল। সর্বশেষ ছয় আসরে প্রতিবার গিয়েছি দ্বিতীয় রাউন্ডে। এখন সময় এসেছে মেক্সিকোর জন্য বড় স্বপ্ন দেখার।’

চিচারিতোর দল জার্মানিকে হারিয়ে সেই ধারারই শুরু করেছে রাশিয়ায়। আজ দক্ষিণ কোরিয়াকে হারিয়ে শেষ ষোলোর টিকিট কাটার রুটিন কাজটাও সেরে রাখতে চায় তারা। সুইডেনের কাছে প্রথম ম্যাচ হারের পর কোরিয়াও অবশ্য মরণ কামড় দিতে তৈরি। দুই দলের মুখোমুখি দেখায়ও কোরিয়ানদের খুব একটা পিছিয়ে রাখা যাবে না। ১০ বারে চারবার জিতেছে তারা, দুটি ম্যাচ হয়েছে ড্র। বিশ্বকাপে ১৯৯৮ সালে একমাত্র দেখায় অবশ্য ৩-১ গোলে জিতেছে মেক্সিকোই। এশিয়ানদের বিপক্ষে শুরুতে পিছিয়ে পড়েও তিন গোল দিয়েছিল ‘এল ত্রাই।’ বিশ্বকাপে এশিয়ান প্রতিপক্ষের বিপক্ষে এখনো কোনো হার নেই তাদের। এবারের আসরটাই অবশ্য অঘটনের। প্রথম এশিয়ান দল হিসেবে দক্ষিণ আমেরিকার কোনো দলকে (কলম্বিয়া) হারিয়ে দেওয়ার রেকর্ড গড়েছে জাপান এই আসরেই।

বিশ্বকাপে এখনো পর্যন্ত যে কয়টি দল আলো ছড়িয়েছে তার শীর্ষেই অবশ্য মেক্সিকো। অঘটন ঘটিয়ে নিজেরা তেমন কিছুর শিকার হবে এমনটা ধরে নেওয়া কঠিনই। কোরিয়ানদের বিপক্ষে বাজির দরে তাই তারাই অনেক এগিয়ে। ম্যাচে খেলোয়াড়, ফরমেশন বদলে অভ্যস্ত কোচ হুয়ান কার্লোস অসোরিও। তবে জার্মানিকে হারানোর পর এই ম্যাচে সেই একাদশটাই ধরে রাখার সম্ভাবনা তাঁর। দ্রুতগতির কোরিয়ান ফ্রন্টলাইনেরর সামনে অন্তত ব্যাকফোর নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় যাবেন না তিনি। তবে সুইডেনের বিপক্ষে খেলা ৪-৩-৩ ফরমেশন থেকে সরে আসতে পারে কোরিয়া। ওই ম্যাচে সুইডিশ ডিফেন্সে তেমন হুমকিই হতে পারেনি তারা, পুরো ম্যাচে মাত্র পাঁচটি শটের কোনোটিই ছিল না পোস্টে। উল্টোদিকে সুইডিশরা প্রচুর জায়গা পেয়েছে আক্রমণের জন্য। জার্মান ক্লাব অগসবার্গে খেলা কু জেচিউল বলেছেন খেলোয়াড়রাই মেক্সিকো নিয়ে প্রচুর ঘাঁটাঘাঁটি করছেন তাঁদের ট্যাবে। হাভিয়ের এর্নান্দেসকেই মূল হুমকি মনে হয়েছে তাঁদের কাছে।

মেক্সিকো কোচ সেই হুমকি হিসেবে টটেনহামে খেলা হিউন মিন সনকে নিশ্চয় নজরে রাখবেন এই ম্যাচে। সুইডেনের বিপক্ষে ফ্লপ সন মরিয়া এই ম্যাচে নিজের ছাপ রাখতে। মেক্সিকোর বিপক্ষে কিছু করতে হলে কোরিয়ানদের চমক দেখাতে হবে। এএফপি



মন্তব্য